পদার্থ বিজ্ঞানে তাপীয় আয়নবাদ তত্ত্বের প্রবর্তক বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী ড. মেঘনাদ সাহার ৬৫তম প্রয়াণ দিবস আজ। ১৯৫৬ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি এই প্রথিতযশা বিজ্ঞানী প্রয়াত হন।

মৃত্যুর ৬৫ বছরেও সংরক্ষিত হয়নি গাজীপুরের শেওড়াতলী গ্রামে তার ভিটেমাটি ও স্মৃতি চিহ্ন। তিনি জীবদ্দশায় মায়ের নামে তৈরি করে গেছেন শিক্ষায়তন।

খ্যাতিমান এই বিজ্ঞানী গাজীপুরের কালিয়াকৈরের নিভৃত গ্রাম শেওড়াতলীতে ১৮৯৩ সালে ৬ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন। প্রচন্ড ঝড়বৃষ্টি ও দুর্যোগের সময় জন্ম বলে মুদি দোকানদার বাবা তার নাম রাখেন মেঘনাদ। দরিদ্র ঘরে জন্ম হলেও অন্যের প্রতিপালিত হয়ে মেঘনাদ ১৯০৯ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় পূর্ববঙ্গে ১ম স্থান অধিকারসহ ১৯১৫ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণিত শাস্ত্রে ১ম শ্রেণিতে ২য় স্থান অধিকার করেন।

বিজ্ঞানী জগদীশচন্দ্র বসুর ছাত্র ও সত্যেন্দ্রনাথ বসুর সহপাঠী মেঘনাদ সাহাকে পদার্থ বিজ্ঞান ও গণিত বিষয়ে অসামান্য গবেষণাসহ পরমাণুর গঠন ও পদার্থের ভৌত ধর্মাবলী বিষয়ে নতুন তত্ত্ব উপস্থাপন বিশ্বখ্যাতি এনে দেয়।

১৯২০ সালে মেঘনাদ সাহার বিখ্যাত তাপ আয়নন তত্ত্ব প্রকাশিত হয়। এই তত্ত্বের সাহায্যে তিনি সূর্য ও তারার আভ্যন্তরীণ অবস্থা বিশ্লেষণ করেন।

Sharing is caring!