ডেস্ক নিউজঃ রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট জিতে প্রোটিয়াদের হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিল পাকিস্তান। পঞ্চম দিনের শুরুটা ভালোই করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা কিন্তু অবিশ্বাস্যভাবে ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তান। হাসান আলী-শাহীন আফ্রিদির বোলিং তোপে মাত্র ৩৩ রানে ঝরে পড়ে প্রোটিয়াদের শেষ ৭ উইকেট।

ম্যাচের শেষ দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার দরকার ছিল ২৪৩ রান, হাতে ছিল ৯ উইকেট। সেখান থেকে ৩ উইকেটেই ২৪১ রান তুলে ফেলেছিল প্রোটিয়ারা। এরপর হাসান আলি ও শাহীন আফ্রিদির তোপে ২৭৪ রানেই গুটিয়ে গেছে কুইন্টন ডি ককের দল। ফলে ৯৫ রানের জয় পায় বাবর আজমরা।

১৬ ওভার বোলিংয়ে ৬০ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়ে প্রোটিয়া শিবিরে ধস নামান হাসান আলী। অপর পেসার শাহীন আফ্রিদিও কম জান না। ২১ ওভার বল করে ৫১ রানের বিনিময় ৪ উইকেট তার দখলে। অপর উইকেট নিয়েছেন ইয়াসির শাহ।

৮১ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ২৪১ রান ছিল প্রোটিয়াদের। ৮২তম ওভারে টানা দুই ডেলিভারিতে দুই ব্যাটসম্যানকে ফেরান হাসান আলি। তার প্রথম শিকার সেট ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করাম (১০৮), পরের বলে তুলে নেন অধিনায়ক কুইন্টন ডি কককে (০)। তাতেই ম্যাচ ঘুরে যায় পাকিস্তানের দিকে।

কয়েক ওভার পর আরেক সেট ব্যাটসম্যান টেম্বা বাভুমাকে সাজঘরের পথ দেখান শাহীন শাহ আফ্রিদি। এরপর আর উইকেটে বাঁধ দিতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। জর্জ লিন্ডে (২১), কেশভ মহারাজ (১), অ্যানরিচ নর্টজেরা (০) দাঁড়াতেই পারেননি হাসান আলির তোপের সামনে। মাঝে শূন্য রানে রানআউট হন কাগিসো রাবাদা। দক্ষিণ আফ্রিকা থামে ২৭৪ রানে।

ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন হাসান আলী আর দ্বিতীয় ইনিংসে ১১৫ রানের ইনিংস খেলে সিরিজ সেরা হয়েছেন মোহম্মদ রিজওয়ান।

Sharing is caring!