ডেস্ক নিউজঃ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের লিভারপুলের জালে গোল উৎসব করেছে ম্যানচেস্টার সিটি। নিজেদের মাঠে চার চারটি গোল খেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। বিপক্ষে মাত্র ১টি পরিশোধ করতে পেরেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা। এ নিয়ে লিগে টানা দশম ম্যাচে জয় তুলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান মজবুত করলো পেপ গার্দিওলার দল।

রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে লিভারপুলকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানসিটি। এই বড় পরাজয়ে গোলরক্ষক আলিসনের রয়েছে সবচেয়ে বড় ভূমিকা। তিন মিনিটের মধ্যে মারাত্মক দুটি ভুল করেন আলিসন। এর মাশুল চরমভাবে দিতে হয়েছে লিভারপুলকে।

এটি ম্যানসিটির টানা দশম ম্যাচে জয় এবং সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তাদের চতুর্দশ জয়। কোনো ইংলিশ ক্লাবের ক্ষেত্রে এটা একটা রেকর্ড। অন্যদিকে শীর্ষ লিগ জেতার পরের মৌসুমে কোনো ইংলিশ ক্লাবের টানা তিন ম্যাচ হারার লজ্জার কীর্তি গড়লো লিভারপুল।

শুরুতে অবশ্য দারুণ গোছালো আক্রমণ শানাচ্ছিল লিভারপুল। কিন্তু ফল আসছিল না। উল্টো স্রোতের বিপরীতে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়ে যায় সিটি। নিজেদের বক্সে রহিম স্টার্লিংকে ফেলে দেন ফ্যাবিনহো। সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু ইলকাই গুন্দোগানের নেওয়া শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

অবশ্য দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে প্রতিশোধ নেন গুন্দোগান। অ্যালেকজান্ডার-আর্নল্ডকে পাশ কাটিয়ে ফোডেনকে খুঁজে নেন স্টার্লিং। তবে স্টার্লিংয়ের শট ফিরিয়ে দেন আলিসন। কিন্তু পেনাল্টি মিসের প্রতিশোধ নিতে মরিয়া গুন্দোগান ফিরতি শটে বল জালে জড়িয়ে দেন।

৬৩তম মিনিটে সিটির ভুলে সমতায় ফেরে লিভারপুল। নিজেদের বক্সে মোহামেদ সালাহকে ফাউল করে বসেন দিয়াস। সুযোগ কাজে লাগিয়ে স্পট কিকে বল জালে জড়িয়ে দেন মিশরীয় ফরোয়ার্ড।

সমতা ফেরানোর ১০ মিনিট পরেই ফের এগিয়ে যায় সিটি। আলিসনের ভুলে তিন মিনিটের মধ্যে দুই গোল খেয়ে বসে শিরোপাধারীরা। ৭৩তম মিনিটে ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষকের ভুল পাসে ডি-বক্সের সামনে বল পেয়ে যান ফোডেন। ভেতরে ঢুকে দুই ডিফেন্ডারের বাধা এড়িয়ে তার বাড়ানো বল কাছ থেকে জালে পাঠান জার্মান মিডফিল্ডার গিনদোয়ান।

লিভারপুলের দুর্দশার এখানেই শেষ হয়। ৭৬তম মিনিটে ফের ভুল করে বসেন আলিসন। নিজের জায়গা থেকে বাইরে বল পাঠিয়েছিলেন তিনি, কিন্তু বল চলে যায় বার্নান্দো সিলভার দিকে। প্রথমে বাইলাইনে পড়ে গেলেও নিজেকে সামলে সঙ্গে সঙ্গে বল ব্যাক পোস্টে ক্রস করেন আর চমৎকার এক হেডে বল জালে জড়িয়ে দেন স্টার্লিং। এটি কোচ গার্দিওলার অধীনে তার ১০০তম গোল।

আর ৮৩তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে জয় নিশ্চিত করেন ফোডেন। গ্যাব্রিয়েল জেসুসের পাস থেকে বল নিয়ে ডান দিক থেকে আচমকা ঢুকে পড়েন এই তরুণ স্ট্রাইকার। এরপর নিজের বুলেট গতির শটে টপ কর্নারে বল পাঠিয়ে দেন। সেই সঙ্গে লিভারপুলের আশার বাতিও নিভে যায়।

এ জয়ে ম্যানসিটির শিরোপা স্বপ্ন আরও উজ্জ্বল হলো। ২২ ম্যাচে দলটির সংগ্রহ ৫০ পয়েন্ট, যা দুইয়ে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চেয়ে ৫ পয়েন্ট বেশি। অন্যদিকে এক ম্যাচ বেশি খেলে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে চারে লিভারপুল। ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে লেস্টার সিটি আছে তিনে।

Sharing is caring!