ভালো কাজের প্রলোভনে সীমান্তের অবৈধ পথে ভারতে পাচার হওয়া দুই কিশোরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়েছে সেদেশের সরকার। বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ভারত সরকারের দেয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিট প্রক্রিয়ায় পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে আনুষ্ঠানিকভাবে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

ফেরত আসা দুই বাংলাদেশি কিশোর হলো- নড়াইল জেলার কাজী মাকসুদ আহমেদের ছেলে কাজী শাহারিয়ার (১৮) ও রাজশাহী জেলার আব্দুল শেখের ছেলে আব্দুল আজিজ লাবু (১৬)।

ফেরত আসা দুই কিশোরকে বেনাপোল থেকে গ্রহণকারী জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার এনজিও সংস্থার প্রোগ্রামার অফিসার এবিএম মুহিত হোসন জানান, ‘ফেরত আসা দুই কিশোর দালালের প্রলোভনে পড়ে অবৈধ পথে ভারতের মুম্বাই শহরে পাচার হয়। পরে মুম্বাই পুলিশ তাদের আটক করলে প্রায় এক বছর জেল খাটে। পরবর্তীকালে মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। এরপর দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি চালাচালির মাধ্যমে বৃহস্পতিবার তাদের ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে দেশে ফেরত পাঠায়।’

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব বলেন, ‘ট্রাভেল পারমিটে মাধ্যমে ওই দুই কিশোরকে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারতের ইমিগ্রেশন পুলিশ। কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ফেরত আসাদের জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা গ্রহণ করেছে। সংস্থাটি তাদের পরিবারে কাছে হস্তান্তর করবে।’

Sharing is caring!