বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সভাপতি মন্ডলির সদস্য, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক মন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আজ সন্ধ্যায় এক স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম অত্যন্ত সৎ, আদর্শ ও নীতিবান রাজনীতিবিদ ছিলেন। সকল লোভ লালসার ঊর্ধ্বে উঠে তিনি নীতি-নৈতিকতার সাথে মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন সারা জীবন। নিজের উপর অর্পিত রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনে সাবেক এই মন্ত্রী কখনো অবহেলা করেনি উল্লেখ করে মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দেশের সকল রাজনীতিবিদদের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

স্মরণ সভায় স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ছিলেন একজন নির্লোভ ও আত্মপ্রচার বিমুখ মানুষ। তিনি সারা জীবন সৎ ও আদর্শের রাজনীতি করে গেছেন। যা পরবর্তী প্রজন্মের জন্য শিক্ষনীয় হয়ে থাকবে। ২০০৭ সালে বাংলাদেশ যখন জরুরী অবস্থা জারী করা হয় তখন তিনি লন্ডন থেকে এসে আওয়ামী লীগের সংকটকালে দলের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। আওয়মী লীগের সফল সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত আস্থাভাজন এবং বিশ্বস্ত সহকর্মী ছিলেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এ সময় সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে যেসব কর্মকর্তা কর্মরত ছিলেন তারা প্রয়াত মন্ত্রীর বিভিন্ন সাফল্যের স্মৃতিচারণ করেন।

আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মোঃ রেজাউল আহসানসহ অত্র মন্ত্রণালয়ের সকল স্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ৭ জানুয়ারি, ২০০৯ থেকে ৯ জুলাই, ২০১৫ পযর্ন্ত স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

Sharing is caring!