করোনা মহামারিতে ২০২০ সালে হয়নি ক্রিকেটের সিংহভাগ ম্যাচ। করোনাভাইরাসের দখলে চলে গেছে অনেক অনেক সিরিজ। তবু করোনার প্রকোপের আগে ও পরে সবমিলিয়ে চলতি বছর আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ হয়েছে ৪৪টি। যার ৪২টিতে জয়-পরাজয়ের দেখা মিলেছে। একটি করে ম্যাচ টাই ও পরিত্যক্ত হয়েছে।

আর এই ৪৪ ম্যাচের মধ্যে বাংলাদেশ খেলেছে মাত্র ৩টি। আর তিন ম্যাচ খেলেই বিশ্বের সব ব্যাটসম্যানকে পেছনে ফেলেছেন বাংলাদেশের লিটন দাস।

ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের মালিক হয়েছেন তিনি। এ বছর লিটন দাস এক ইনিংসে করেছেন ১৭৬ রান। যা বর্ষসেরার তালিকায় সবার উপরে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন আরেক বাংলাদেশি। ড্যাশিং ওপেনার ও বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। এক ইনিংসে তার সংগ্রহ ১৫৮ রান। চমক দেখিয়েছেন পল আয়ারল্যান্ড দলের স্টারলিং। শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ম্যাচে ১৪২ রান করে তৃতীয় স্থানটি নিজের করে নিয়েছেন।

ভারতের বিপক্ষে সদ্য অনুষ্ঠিত ওয়ানডে সিরিজের একটি ম্যাচে ১৩১ রানের ইনিংস খেলে চতুর্থ স্থানে এসেছেন অসি তারকা স্টিভ স্মিথ।

পঞ্চম স্থানটিতে আরও একটি চমক রয়েছে। বিশ্বের বাঘাবাঘা ব্যাটসম্যানদের পেছনে ফেলে ওমানের বিপক্ষে অপরাজিত ১২৯ রান খেলে তালিকার পঞ্চমে নাম লিখিয়েছেন নামিবিয়ার ক্রেইগ উইলিয়ামস।

সমান রান করে উইলিয়ামসের পাশে নিজের নাম লিখিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার জানেমান মালান। ২০২০ সালে লিটন-তামিম ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দেড়শ’ রানও করতে পারেনি।

চলতি বছরের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। সেই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ২০টি বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কার মারে ১৫৮ রানের ইনিংস খেলেন তামিম ইকবাল। যা ছিল ওই দিন পর্যন্ত বাংলাদেশের পক্ষে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের রেকর্ড।

এর পরের ম্যাচেই ১৭৬ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলে তামিমের সেই রেকর্ড নিজের করে নেন লিটন দাস। ১৬টি চার ও ৮টি ছয়ের মার ছিল তার সেই ইনিংসে। তামিম ও লিটনের পরপর দুই ম্যাচে খেলা ইনিংস দুটিই ২০২০ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত দুই ইনিংস হয়ে থাকল।

২০২০ সালে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস
লিটন দাস (বাংলাদেশ) – ১৭৬ রান (১৬*৪ ও ৮*৬ বনাম জিম্বাবুয়ে)

তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ) – ১৫৮ রান (২০*৪ ও ৩*৬ বনাম জিম্বাবুয়ে)

পল স্টারলিং (আয়ারল্যান্ড) – ১৪২ রান (৯*৪ ও ৬*৬ বনাম ইংল্যান্ড)

স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া) – ১৩১ রান (১৪*৪ ও ১*৬ বনাম ভারত)

ক্রেইগ উইলিয়ামস (নামিবিয়া) – ১২৯* রান (১৩*৪ ও ৬*৬ বনাম ওমান)

জানেমান মালান (দক্ষিণ আফ্রিকা) – ১২৯* রান (৭*৪ ও ৪*৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া)

চলতি বছর সবচেয়ে বেশি ১৩টি ওয়ানডে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। স্বাভাবিকভাবেই সর্বোচ্চ রানের তালিকায় তাদের জয়জয়কার। ১৩ ম্যাচের সবকয়টি খেলেছেন অসি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তিনি দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচ ফিফটির সুবাদে ৫৬ গড়ে করেছেন ৬৭৩ রান। সূত্র : ক্রিকইনফো

Sharing is caring!