ডেস্ক নিউজঃ কক্সবাজার শিবির থেকে পালিয়ে সীমান্তের ওপারে দিল্লির ট্রেনে উঠে ধরা পড়েছে ১৪ রোহিঙ্গা। এরা ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ভারতে ঢুকেছে বলে জানাচ্ছে সংবাদমাধ্যমগুলো।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতেই আগরতলা থেকে নয়াদিল্লি মুখী রাজধানী এক্সপ্রেস ট্রেনটিতে অভিযান চালায় ভারতীয় রেল পুলিশ। ট্রেনটির একজন যাত্রী হেল্পলাইন ১৮২ নম্বরে ফোন করে তথ্যটি দেয়। যার ভিত্তিতে ওই অভিযান চালানো হয়।

ডেকান হেরাল্ডের রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রথমে খবরটি পায় রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স-আরপিএফ-র আলিপুর শাখা। তারা বিষয়টি জলপাইগুঁড়ি আরপিএফকে জানিয়ে দেয়। সেখানে কাটিহারেই ছিলো ট্রেনটির পরের স্টপেজ।

জলপাইগুঁড়িতে আরপিএফ রেলপুলিশের সহায়তা নিয়ে অভিযান চালায় এবং ১৪ জনকে পায় যারা ত্রিপুরার বদরপুর থেকে এর যাত্রী হয়েছে কিন্তু তাদের কাছে কোনো বৈধ কাগজপত্র ও পরিচয়পত্র ছিলো না।

জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পারে তাদের কাছে যে টিকিট ছিলো সেগুলো অন্য কারো নামে কাটা। আরও জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় এরা রোহিঙ্গা এবং কক্সবাজারের আশ্রয় শিবির থেকে পালিয়ে ভারতে ঢুকেছে।

ভারতীয় উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তবর্তী রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ শুভানন চন্দ্র বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি বিবৃতি দেন। যার ভিত্তিতেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যম খবরটি প্রকাশ করে।

Sharing is caring!