নওগাঁর আত্রাই উপজেলার পাইকড়া গ্রামে প্রাকৃতিক দুর্যোগ বন্যার হাত থেকে লীজ নেওয়া সরকারী দুটি পুকুরের মাছ রক্ষা করতে পারলেও দুবৃর্ত্তদের হাত থেকে রক্ষা করতে পারলো না ওই দুই পুকুরের মাছ।

রোববার রাতে দুর্বৃত্তরা দুই পুকুরে বিষ দিয়ে ১৫ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে বলে ক্ষতিগ্রস্তদের পক্ষ তেকে দাবি করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের দুটি খাস পুকুর সরকারের সিকট থেকে তিন বছর মেয়াদে ১৫ লাখ টাকায় ইজারা নিয়ে মাছ করে আসছিলেন পাইকড়া মৎস্যজীবি সমিতি। পুকুর লিজ নেওয়ার সময় এলাকার একটি প্রভাবশালী মহলের সাথে বিরোধ বাধে ওই সমিতির। এই অবস্থায় গত বছর একইভাবে মাছ বিক্রির উপযোগী হলে রাতের আঁধারে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করা হয়।

পাইকড়া মৎস সমিতির সভাপতি শ্রীপদ প্রামাণিক জানান, আমরা গরীব মানুষ খোলা জলাশয়ে মাছ মেরে ও সমিতির মাধ্যমে পুকুর লিজ নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। গত বছর একবার পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করা হয়। সেই ক্ষতি কাটিযে উঠতে না উঠতে একইভাবে দুবর্ত্তরা রোববার রাতে বিষ দেয়। পরের দিন সকালে মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। ওই দুই পুকুরের প্রায় ১৫ লাখ টাকার মাছ নিধন করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি তিন দফায় বন্যায় অনেক কষ্টে করে পুকুরের মাছ রক্ষা করেছি। কিন্তু দুর্বৃত্তরা এবার আমাদের পথে বসিয়ে দিল। আমরা কোথায় যাব কি খেয়ে বাঁচবো। দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোসলেম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন খবর পেয়েই সোমবার দুপুরে ওই দুটি পুকুর পরিদর্শন করা হয়েছে। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Sharing is caring!