র‌্যাব-৪ এর অভিযানে ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানাধীন কাইচাবাড়ি এলাকায় মিনি ক্যাসিনো জুয়ার আসর হতে মাদকসহ ২১ জন গ্রেফতার

এলিট ফোর্স হিসেবে র‌্যাব আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই আইনের শাসন সমুন্নত রেখে দেশের সকল নাগরিকের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে অপরাধ চিহ্নিতকরণ, প্রতিরোধ, শান্তি ও জনশৃংখলা রক্ষায় কাজ করে আসছে। এছাড়াও জঙ্গীবাদ, মাদক, সন্ত্রাস, অস্ত্র, খুন, ধর্ষণ, নাশকতা, স্পর্শকাতর ঘটনার রহস্য উদঘাটনসহ অন্যান্য অপরাধের পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ক্যাসিনো এবং অনলাইন ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান পরিচালনার ক্ষেত্রে র‌্যাব সদা সচেষ্ট।

এরই ধারাবাহিকতায় ২৪ অক্টোবর ২০২০ তারিখ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় যে, অবৈধভাবে আশুলিয়া থানাধীন বাইপাইল এলাকায় কিছু অসাধু লোকজন ক্যারাম খেলার আড়ালে ক্যাসিনোসহ মাদক দ্রব্য সেবন করে এলাকার যুব সমাজকে নষ্ট করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে ঐদিন সন্ধ্যা ১৯.৩০ ঘটিকা হতে রাত ১১.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিছুর রহমান এর উপস্থিতিতে এবং সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ সাজেদুল ইসলাম সজল এর নেতৃত্বে র‌্যাব-৪ এর একটি চৌকস আভিযানিক দল আশুলিয়া থানাধীন কাইচাবাড়ি এলাকায় ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করে মিনি ক্যাসিনো জুয়ার আসর হতে প্লেয়িং কার্ডসহ ০১ টি ইলেক্ট্রিক ক্যাসিনো বোর্ড, ১০০ পিস ইয়াবা, ১২ ক্যান বিদেশী বিয়ার, ২২ টি মোবাইল এবং নগদ ৩৮,০০০/-টাকাসহ ২১ জন জুয়াড়ীকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেনঃ-

১। মোঃ বিল্লাল (৩৮) জেলাঃ- জামালপুর
২। মোঃ জুয়েল (২৮) জেলাঃ- ঢাকা
৩। মোঃ মইদুল ইসলাম (৩২) জেলাঃ- ঢাকা
৪। মোঃ সবুজ মিয়া (২৮) জেলাঃ- জামালপুর
৫। মোঃ শরিফ (২৮) জেলাঃ- ঢাকা
৬। মোঃ লিটন (৪৫) জেলাঃ- টাঙ্গাইল
৭। মোঃ রবিউল মোল্ল্যা (২৪) জেলাঃ- ফরিদপুর
৮। মোঃ আবু তালেব (২০) জেলাঃ- গাইবান্ধা
৯। মোঃ দিয়াজুল ইসলাম (২০) জেলাঃ- ঢাকা
১০। মোঃ শিপন (২০) জেলাঃ- জামালপুর
১১। মোঃ আব্দুল আলিম (৩৫) জেলাঃ- রংপুর
১২। মোঃ আজাদুল ইসলাম (৫০) জেলাঃ- জয়পুরহাট
১৩। মোঃ সোহেল মোল্ল্যা (৩২) জেলাঃ- রাজবাড়ী
১৪। মোঃ আসাদুল ইসলাম (৩০) জেলাঃ- গাইবান্ধা
১৫। মোঃ এখলাছ (৩৫) জেলাঃ- ঢাকা
১৬। মোঃ মঈন মিয়া (২৮) জেলাঃ-ঢাকা
১৭। মোঃ মাসুদ রানা (২০) জেলাঃ- নাটোর
১৮। মোঃ হাবিবুর রহমান (৪৭) জেলাঃ- গাইবান্ধা
১৯। মোঃ রুবেল মিয়া (৩৩) জেলাঃ- ময়মনসিংহ
২০। মোঃ ফজলে রাব্বি (২২) জেলাঃ- বরিশাল
২১। মোঃ রনি ভূঁইয়া (২৫) জেলাঃ- নোয়াখালি

গ্রেফতারকৃত আসামীরা উক্ত অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছে। ক্যাসিনো বোর্ডের মূল মালিক পলাতক রয়েছে। মূল মালিকসহ অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত জুয়া আইনে ও মাদক আইনে মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন। অদূর ভবিষ্যতে র‌্যাব-৪ এরুপ ক্যাসিনোসহ অনলাইন ক্যাসিনো বিরোধী নজরদারি এবং সাঁড়াশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Sharing is caring!