1. admin@admin.com : admin :
  2. harundesk@gmail.com : unlimitednews24 : Md Jibon
  3. unlimitednews24@gmail.com : Md Jibon : Md Jibon
  4. mdnayeem7726@gmail.com : Md Nayeem : Md Nayeem
চালের মূল্য বৃদ্ধিতে বিপাকে নিন্ম আয়ের মানুষ - Unlimited News 24।।আনলিমিটেড নিউজ
শুক্রবার, ০৯ জুন ২০২৩, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ

চালের মূল্য বৃদ্ধিতে বিপাকে নিন্ম আয়ের মানুষ

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৭ মে, ২০১৭

আনলিমিটেড নিউজ কুষ্টিয়া :: বোরো মৌসুমের এ সময়টাতে সাধারণত বাজার পড়ে যায় ধান ও চালের। তবে এবার তার ব্যতিক্রম। দাম পড়াতো দুরে থাক দফায় দফায় বাড়ছে চালের দাম।

কুষ্টিয়ায় হঠাৎ করেই চালের মূল্য অস্বাভাবিক বৃদ্ধিতে নিন্ম আয়ের মানুষ পড়েছে দুর্ভোগে। এতে নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষের দৈনন্দিন জীবন যাত্রা নাভিশ্বাস হয়ে উঠেছে।

প্রতিদিন কেজি প্রতি চালের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্রেতাদের সাথে বাক-বিতন্ডাও হচ্ছে বিক্রেতাদের। এদিকে ধানের দাম বৃদ্ধি ও সংকটকে অজুহাত হিসেবে দাঁড় করাচ্ছেন মিল মালিকরা।

তবে ক্রেতা ও খুচরা দোকানিরা দায়ি করছেন সিন্ডিকেটকে। এদিকে আসছে রমজানে কেজিতে দুই, এক টাকা কমলেও পরে আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা মিল মালিকদের।

জানা যায়, দেশের চালের মোট চাহিদার বড় একটি অংশ যোগান যায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম চালের মোকাম কুষ্টিয়ার খাজানগর থেকে। অন্য বছর এখানকার ৫ শতাধিক মিল বোরো মৌসুম শেষ হওয়ার আগে ভাগেই পুরোদমে উৎপাদনে গেলেও এ বছর তা সম্ভব হয়নি।

মিল মালিকরা বলছেন, চলতি বছরে হাওড়সহ অনেক জেলায় প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ নানা কারণে নষ্ট হয়ে গেছে ধান। এতে যেমন ধানের সঙ্কট আছে তেমনি গত বছরের তুলনায় বাজারও চড়া। আর এ কারণেই চালের বাজার কমছে না। সাধারণ ক্রেতারা জানান, মাত্র এক সপ্তাহ আগেও মিনিকেট চাল প্রতি কেজি ৪২ থেকে ৪৩ টাকা, কাজল লতা ৪৫ থেকে ৪৬ টাকা মোটা আঠাশ চাল কেজি প্রতি ৩৬ থেকে ৩৮ টাকায় বিক্রি হতো। মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজি প্রতি ৩ থেকে ৪টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে প্রতি চালের কেজিতে। তাই বাধ্য হয়ে চড়া দামেই কিনতে হচ্ছে এ নিত্য পণ্যটি।

পাইকারী চাল বিক্রেতা এনামুল হক জানান, কুষ্টিয়ার বাজারে মিনিকেট চাল এখন ৫০ থেকে ৫২ টাকা আঠাশ ৪২ থেকে ৪৩ টাকা আর কাজল লতা ৪৫ থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতিদিন কেজি প্রতি চালের মূল্য ৩ থেকে ৪টাকা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ সময়টাতে যেখানে বাজারে প্রচুর চালের সরবরাহ থাকে সেখানে এবার ভিন্নচিত্র। চাহিদার তুলনায় চালের সরবরাহ ও কম।

আরেকজন বিক্রেতা মাসুদ রহমান জানান, এ বছর বিদেশী চালের আমদানী না হওয়ায় ও মিল-চাতাল বন্ধ থাকায় চালের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সেই সাথে সিন্ডিকেট তো রয়েছে। প্রতিদিন কেজি প্রতি চালের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্রেতাদের সাথে বাক-বিতন্ডাও হচ্ছে বলে জানালেন এই বিক্রেতারা।

কুষ্টিয়া অটো মেজর এন্ড হাসকিং মিল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জয়নুল আবেদিন সাধু জানান, গত বছরের তুলনায় কুষ্টিয়ার মোকামে সব ধরনের চালের দাম ব্যাপক হারে বেড়েছে।

Sharing is caring!

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Error Problem Solved and footer edited { Trust Soft BD }
এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

© All rights reserved © 2017-2021 www.unlimitednews24.com
Web Design By Best Web BD