চাকরির দাবিতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের অবস্থান কর্মসূচির পর মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে হঠাৎ ক্যাম্পাস ছেড়েছেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র হালদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘উপাচার্য স্যার ক্যাম্পাস থেকে চলে যাওয়ার বিষয়টি আমরাও শুনেছি। যাওয়ার সময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি ব্যবহার করেছেন। এ সময় তিনি একটি পত্রও লিখে গেছেন, তবে সেটি এখনো খুলে দেখা হয়নি।’

হঠাৎ গভীর রাতে ক্যাম্পাস ত্যাগ করার বিষয়ে জানতে চাইলে বিধান চন্দ্র বলেন, ‘উপাচার্য স্যার বলে গেছেন ওনার স্ত্রী অসুস্থ ছিলেন। তার চিকিৎসা প্রয়োজন ছিল। তবে তিনি কবে ফিরে আসবেন এটা ঠিক করে বলা যাচ্ছে না। এছাড়া স্যারের মেয়াদেরও শেষ সময় চলে এসেছে।’

এর আগে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে ছাত্রলীগের অবস্থান কর্মসূচি শুরু হয়। রাত ৮টা পর্যন্ত তাদের কর্মসূচি চলছিল। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপাচার্যের সঙ্গে আলোচনায় বসেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ১০ মাস উপাচার্য নিজ বাসভবনে নিজে থেকে অবরুদ্ধ থাকার পর মঙ্গলবার মধ্যরাতে হঠাৎ বিশ্ববিদ্যালয় ছেড়ে চলে যাওয়ার ঘটনা অনেককেই বিস্মিত করেছে। অনেকের ধারণা চাকরি প্রত্যাশিদের চাপের ফলেই ভিসি ক্যাম্পাস ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হবে আগামী মাসের পহেলা ফেব্রুয়ারিতে।

তবে ক্যাম্পাস ছাড়ার কারণ জানতে উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেমের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Sharing is caring!