ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটির গুরুত্বপূর্ণ মিটিং আজ। গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসছে এমন আভাসে প্রতিটি ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানাতে বইছে টানটান উত্তেজনা। ধারণা করা হচ্ছে ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামী লীগের অনেক কমিটি দীর্ঘদিন ধরে শুধু সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, আবার কেউ সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক এর পাশাপাশি রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদে কাউন্সিলের দায়িত্ব পালন করছেন। এ বিষয়ে দলটির হাইকমান্ড পরিস্কার নির্দেশনা দিয়েছেন কোনো কাউন্সিলর দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকতে পারেন না।
এ নির্দেশনার আলোকেই ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে হেভিওয়েট নেতাদের কাউন্সিলর হওয়ার কারনে শুধু সদস্য হিসেবে স্থান দেওয়া হয়েছে। আর সদস্য হওয়া সিনিয়র এ নেতাদের হাত ধরে যারা রাজনীতির মাঠে পথচলা শিখেছে তারা এখন নিয়মের জালে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে অবস্থান করছে।
সূত্র বলছে, দলের সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশনা মেনেই ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবু আহমেদ মান্নাফী ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির কাউন্সিলদের গুরুত্বপূর্ণ পদে না রাখার সিদ্ধান্তে কঠোর অবস্থানে রয়েছে।
এ দিকে যে সকল কাউন্সিলগণ সিনিয়র হয়েও সদস্য হয়েছেন তারও নিয়মটি যেন সব ক্ষেত্রে সমানভাবে প্রয়োগ হয় এ বিষয়ে আজকের মিটিংয়ে কঠোরভাবে ঐক্যবদ্ধ থাকবেন।

Sharing is caring!