ছাত্রলীগের ৭৩তম জন্মদিন ও বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির সাবেক নেত্রী জ্যোতি সরকার ধারাবাহিকভাবে অসহায়, দিনমজুর, চাষি ও বৃদ্ধদের শীতের পোশাক ও কম্বল বিতরন করে মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গত সোমবার থেকে তিনি ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন এলাকায় শীতার্ত মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করছেন। এ সময় সবার খোঁজ খবর নেন ও সামর্থ্য অনুযায়ী সহযোগিতা করেন।

জ্যোতি আনলিমিটেড নিউজ২৪.কম’কে বলেন, ছাত্রলীগর একমাত্র অভিভাবক, যার সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বর বুকে অন্যতম সফল একটি রাষ্ট্র, সেই বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনার আলোকে আমি মানবতার পথে অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি, আগামীতেও কাজ করবো। প্রাণের সংগঠন ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রলীগের একমাত্র অভিভাবক দেশরত্ন শেখ হাসিনা বলেছেন, ছাত্রলীগ যেনো তার সাধ্যমতো মানুষের পাশে দাঁড়ায়। তারই ধারাবাহিকতায় নেত্রীর নির্দেশ মোতাবেক ছাত্রলীগের সাবেক কর্মী হিসেবে আমি আমার জায়গা থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছি।’

জ্যােতি বলেন, ‘ছাত্রলীগের একজন সাবেক কর্মী হিসেবে আমি গর্বিত। দায়িত্বশীল নেতাকর্মীরাসহ সমাজের বিত্তবানরা যদি এভাবে তাদের সাধ্যমতো আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে আসেন, তাহলে খুব শিগগিরই শতভাগ ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণ করা সম্ভব হবে।’

তিনি বলেন, সবাই সুন্দর স্বপ্ন দেখতে পারেন না, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তিনি শুধু স্বপ্ন দেখেন না, স্বপ্নের বাস্তবায়নও করেন। আমি গর্বিত, আমি ছাত্রলীগের একজন কর্মী হতে পেরেছি, শেখ হাসিনার কর্মী হতে পেরেছি।

Sharing is caring!