সাবেক ছাত্রলীগ নেতাসহ দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গণের ব্যক্তিত্বদের প্রাধান্য দিয়ে আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখানে দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য নাট্যব্যক্তিত্ব আতাউর রহমানকে চেয়ারম্যান এবং সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিলকে সদস্য সচিব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ৪৫ সদস্য বিশিষ্ট এই উপ-কমিটির অনুমোদন দেন। এরপরই এই উপ-কমিটি প্রকাশ করা হয়।

কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন- সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি, সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বাবু, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য তারানা হালিম, সাবেক যুবলীগ নেতা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব চয়ন ইসলাম, মাছরাঙা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু, দৈনিক সংবাদ সম্পাদক আলতামাস কবির মিশু, অভিনেতা আজিজুল হাকিম, ফেরদৌস আহমেদ, জায়েদ খান, হারুনুর রশিদ, এহসানুল হক মিনু, সঙ্গীতশিল্পী রফিকুল আলম, শুভ্র দেব, মহিউজ্জামান চৌধুরী ময়না, পুলিশের সাবেক ডিআইজি মোজাম্মেল হক, তাহসিন আজিম সিজান, সাংবাদিক অনিমেষ চক্রবর্তী, মুহম্মদ আসিফ ইকবাল, পদ্মাবতী দেবী, তৃণা মজুমদার, আবু তালহা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গোলাম মোস্তফা সুজন, সুব্রত চন্দ, নুরুল আলম পাঠান মিলন, মুস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, আশিকুর রহমান রন, সৌমেন চন্দ্র বসু, সাইফুল আজম বাসার, সঞ্জীব দাস অপু, আসলাম হোসেন শিহির, আনজাম মাসুদ, সাঈদ বাবু, ড. শাহাদাত হোসেন নিপু, তাহেরুল হাসান শিবলী, জয়ন্ত আচার্য্য, ফাহাদ ইউসুফ হোসেন প্রমিত, মোশারফ হোসেন, গোলাম বাকী চৌধুরী, ফাতেমা তুজ জোহরা চৌধুরী রুশী, জাহেদুর রহমান সোহেল, অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী রানা এবং প্রকৌশলী রতন দত্ত।

দলীয় সূত্র জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বিষয়ভিত্তিক বিভাগীয় সম্পাদকরা বেশ আগেই দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে স্ব স্ব উপ-কমিটির তালিকা জমা দিয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করে উপ-কমিটিগুলো সংশ্নিষ্ট সম্পাদকদের কাছে হস্তান্তর করছেন। এর আগে ৪০ সদস্যে শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক উপ-কমিটি এবং ৪২ সদস্যের স্বাস্থ্যবিষয়ক উপ-কমিটিসহ আরও ২-৩টি উপ-কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে সবগুলো উপ-কমিটি ঘোষণা করা হবে।

বিগত সময়ে দলের প্রতিটি উপ-কমিটিতে সদস্য সংখ্যা শতাধিক থাকলেও এবার ৩৫ সদস্য বিশিষ্ট উপ-কমিটি করার জন্য নির্দেশনা ছিল। তবে বেঁধে দেয়া সংখ্যা ঠিক রাখতে পারছেন না সংশ্লিষ্ট সম্পাদকরা। এখন পর্যন্ত ঘোষিত সবগুলো উপ-কমিটিতেই সদস্য সংখ্যা ৪০ অথবা তার ঊর্দ্ধে রাখা হয়েছে।

Sharing is caring!