বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিয়ে রেকর্ড সংখ্যক বাণিজ্যিক জাহাজ আগমনে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে মোংলা বন্দর। সৃষ্টির ৭০ বছরে এই প্রথম কোন এক মাসে ১০৬টি জাহাজ ভিড়েছে বন্দরে। এর আগে এক মাসে এত জাহাজ এই বন্দরে আর কখনও আসেনি।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আজ সকালে মোংলা বন্দরে লাইন ষ্টোন (পাথর) নিয়ে বাংলাদেশ পতাকাবাহী ‘এমভি ফাতেমা জাহান’, তরল গ্যাস নিয়ে লাইবেরিয়ান পতাকাবহী ‘এমভি গ্যাস ইলিক্সার’, পানামা পতাকাবাহী ‘এমভি বি এল পি জি সুফিয়া’ এবং সিঙ্গাপুর পতাকাবাহী ‘এমভি ইপিক বলিভার’ বন্দরে নোঙ্গর করলে রেকর্ড সৃষ্টি হয়।

রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান আরও বলেন, মোংলা বন্দর সৃষ্টির ইতিহাসে ১০৬টি জাহাজ কোন মাসে আসেনি, ২০২০ সালের নভেম্বরে ১০৬টি জাহাজ ভিড়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করলো।

বন্দর সুত্র জানায়, ১৯৫০ সালে যাত্রা করে অনেক দুঃসময় পার করেছে এই বন্দর। ধীরে ধীরে বর্তমান সরকারের নানামুখী উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ নেওয়ার ফলে এই বন্দর ঘুরে দাঁড়ায়। আমদানি রফতানি বৃদ্ধির সাথে অর্থনৈতিক চাকাও দ্রুত ঘুরতে থাকে। লোকসান থেকে লাভজনক অবস্থানে আসে দেশের বৃহত্তর আর্ন্তজাতিক এই সমুদ্র বন্দরটি।

সফলতার কারণ হিসেবে চেয়ারম্যান জানালেন, আর্ন্তজাতিক বিনিয়োগকারীদের কাছে এই বন্দরের সুযোগ-সুবিধাকে তুলে ধরা হয়েছে। যে কারণে বিদেশী রাষ্ট্রগুলো এই বন্দরকে ব্যবহার করতে আগ্রহী হচ্ছে। এতে বন্দরের আয়ও বাড়ছে।

এদিকে, এই এক মাসে কি পরিমাণ পণ্য হ্যান্ডলিং এবং অর্থ আয় হয়েছে তা জানতে আরও এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে বলে জানায় বন্দরের অর্থ বিভাগ।

Sharing is caring!