ডেস্ক নিউজঃ শেষ পর্যন্ত হোয়াইট হাউসের নিয়ন্ত্রণে কে আসছেন? তা দেখতে বিপুল আগ্রহ নিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর দিকে নজর রাখছেন বিশ্ববাসী। নির্বাচনে আগের চেয়ে বাইডেনের পথ আরও সহজ হলেও, এখনো চমকে দেয়ার মতো সক্ষমতা আছে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজ বলছে, ঐতিহাসিক এ নির্বাচনে এখনও নিশ্চিত নয় কে আমেরিকার মসনদে বসছেন। শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে থাকলেও এমন সংখ্যায় গিয়ে তিনি ঠেকেছেন, যেখান থেকে সহজে উত্তরণ হওয়া কঠিন। গতবারের নির্বাচনের ন্যায় যে কোন সময় পরিস্থিতি পাল্টে যেতে পারে।

ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ব্যাপক ব্যবধানে পিছিয়ে থাকলেও অপ্রকাশিত রাজ্যগুলোর ফলাফলে তিনি আবারও হোয়াইট হাউজের নিয়ন্ত্রণে আসতে পারেন। তবে সে জন্য অনেক কাঠখড় পুড়াতে হবে ট্রাম্পকে। অর্থাৎ ট্রাম্পের জয়ের জন্য একটি পথ খোলা আর তা হচ্ছে- বাকি সবগুলো রাজ্যে ট্রাম্পের জয় নিশ্চিত করতে হবে।

নির্বাচনে এখন পর্যন্ত বাইডেন ২৬৪ ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট নিয়ে এগিয়ে আছেন। ট্রাম্প পেয়েছেন ২১৪ ভোট। কিন্তু সবার নজর যেখানে, সেই নেভাদায় এখন পর্যন্ত ভোট কাস্ট হয়েছে ৮৪ শতাংশ।

এখনও প্রায় ৩ লাখ ভোট গণনা বাকি। যা ভোটের হারে ১৪ শতাংশ। ক্ষমতায় যেতে হলে অন্যান্য রাজ্যগুলোর সঙ্গে অবশ্যই ট্রাম্পকে এখানে জিততে হবে। যার সক্ষমতা এখনও আছে মার্কিন এ প্রেসিডেন্টের।

এদিকে কাঙ্খিত ম্যাজিক সংখ্যা থেকে মাত্র ৬ ভোট দূরে থাকা বাইডেনের ভাগ্যও ঝুলে আছে নেভাদার সঙ্গে। যদিও, জর্জিয়া ও পেনসিলভেনিয়ায় সমানে সমানে লড়াই করছেন তিনি। সম্ভাব্য এই দুই রাজ্যের একটিতেও জয় পেলে প্রেসিডেন্ট হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে তার। তাই, রাজ্য দুটির দিকে তাকিয়ে আছেন তিনিও।

দুই রাজ্যে শুরু থেকে এখনো এগিয়ে ট্রাম্প। জর্জিয়ায় এখনো ২০ হাজারের মতো ভোট গণনা বাকি রয়েছে। এ ফলাফলও সব অপেক্ষার অবসান করে দিতে পারে। ঘুরে দাঁড়াতে এ রাজ্য ট্রাম্পের জন্য ডু অর ডাই। তাই, বেশ অস্বস্তিতে আছেন রিপাবলিকান প্রার্থী।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জর্জিয়ায় ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা শেষ হয়েছে। যেখানে মাত্র ২ হাজার ভোটে এগিয়ে ট্রাম্প। প্রকাশিত ফলাফলে ট্রাম্প পেয়েছেন এখন পর্যন্ত ২৪ লাখ ৪৭ হাজার ৩৪৩ ভোট। পিছিয়ে থাকা বাইডেন পেয়েছেন ২৪ লাখ ৪৫ হাজার ৫৬৮ ভোট। এখনও বাকি এক শতাংশ।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হতে বড় ভূমিকা রাখতে পারে পেনসিলভেনিয়া। ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্যগুলোর মধ্যে অন্যাতম এই রাজ্যে এখনও এগিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাইডেন আগের চেয়ে অনেকটা ব্যবধান কমিয়ে আনলেও এ রাজ্যে জয় পাওয়া তার জন্য বেশ কঠিনই হবে। অপরদিকে, পুনরায় রাজত্ব ফিরে পেতে পেনসিলভেনিয়ায় জয়ের বিকল্প নেই ট্রাম্পের। সম্ভাবনাও আছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২০টি ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটের এ রাজ্যে ৯৫ শতাংশ ভোট গণনা শেষ হয়েছে। যেখানে ২৩ হাজারের বেশি ভোট নিয়ে বাইডেনের থেকে এগিয়ে ট্রাম্প। ভোটের হারে যা ৪৯ দশমিক ৬ শতাংশ। অন্যদিকে ৩২ লাখ প্রায় ৬৩ হাজার ভোট নিয়ে পিছিয়ে বাইডেন। ভোটের হারে ট্রাম্পের চেয়ে দশমিক ৩ শতাংশ কম।

এখনও ৭ লাখের বেশি ভোট গণনা বাকি রয়েছে। ফলে দুই প্রার্থীরই জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে এখানে। এর মধ্যে জয় ছাড়া কিছু ভাবছেন না ট্রাম্প। এছাড়াও বাকি দুইরাজ্য আলাস্কা ও উত্তর ক্যারোলিনায় বাইডেনের থেকে অনেক এগিয়ে ট্রাম্প। সেগুলোতে তার জয় অনেকটা নিশ্চিত।

এদিকে যেকোন সময় জর্জিয়ার ফল ঘোষণা হতে পারে। এতে যদি ট্রাম্প জয়ী হতে পারেন, তাহলে আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠবেন তিনি। পক্ষান্তরে ফল উল্টো হলে সোজা বাড়ির পথ ধরতে হবে ৪৪তম প্রেসিডেন্ট থেকেই।

Sharing is caring!