ডেস্ক নিউজঃ প্রতিযোগিতামূলক বাজার ব্যবস্থার নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগলের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। গুগলের বিরুদ্ধে অভিযোগ—ইন্টারনেটভিত্তিক অনুসন্ধান এবং অনলাইন বিজ্ঞাপনে একচেটিয়া আধিপত্য ধরে রাখতে প্রতিযোগিতামূলক বাজার ব্যবস্থার নীতিমালা ভঙ্গ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

গুগলের বিরুদ্ধে অভিযোগ- মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন ডিভাইস আর ব্রাউজারে নিজেদের সার্চ ইঞ্জিনকে ডিফল্ট হিসেবে রাখতে প্রতি বছর লাখ-কোটি ডলারের ঘুষ দেয় গুগল। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

এক বছরের বেশি সময় ধরে অনুসন্ধানের পর গুগলের বিরুদ্ধে মামলা করেছে মার্কিন বিচার বিভাগ এবং যুক্তরাষ্ট্রের ১১টি অঙ্গরাজ্যের প্রশাসন। মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন ডিভাইস ও ব্রাউজারে নিজেদের সার্চ ইঞ্জিনকে ডিফল্ট (আগে থেকেই ইনস্টল করা) হিসেবে রাখতে প্রতি বছর শত শত কোটি ডলার ঘুষ দেয় গুগল।

বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ কোনো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মার্কিন প্রশাসনের গত কয়েক বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় আইনি চ্যালেঞ্জ এটি।

এর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়নও গুগলের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ এনে জরিমানা করেছিল। ইউরোপীয় কমিশনের চাওয়া ৮২০ কোটি ইউরো জরিমানা মওকুফের জন্য আপিল করেছে গুগল।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের করা মামলায় ‘ব্যাপক ত্রুটি’ রয়েছে বলে জানিয়েছে গুগল। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, তারা যে খাতে কাজ করে তা অত্যন্ত প্রতিযোগিতাপূর্ণ এবং তারা সসবসময়ই গ্রাহকের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে আসছে।

গুগল এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘লোকজন গুগল ব্যবহার করে স্বেচ্ছায়। গুগল ব্যবহার করার জন্য কারো ওপর কোনো জোর করা হয় না কিংবা অন্য কোনো বিকল্প নেই বলে কেউ গুগল ব্যবহার করে না।’

যুক্তরাষ্ট্র সরকারের অভিযোগের বিরুদ্ধে গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট লড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Sharing is caring!