চট্টগ্রামের অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরী হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামির সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ইমান আলীর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল কোর্টে এই রায় দেন।

এই তিন আসামি হলেন, তসলিম উদ্দীন ওরফে মন্টু, আজম ও আলমগীর কবির ওরফে বাইট্টা আলমগীর।

সাংবাদিকদের বিষয়টি জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত। আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও অ্যাডভোকেট হেলাল উদ্দিন মোল্লা।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ১৬ নভেম্বর সকাল ৭টার দিকে চট্টগ্রামের জামালখান এলাকার বাসায় নাজিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার স্ত্রী রেলওয়ে সাবেক অডিট কর্মকর্তা উমা মুহুরী বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে মোট ১১ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে।

নিন্ম আদালত গিট্টু নাসির, তসলিম উদ্দীন ওরফে মন্টু, আজম ও আলমগীর কবির ওরফে বাইজা আলমগীরের ফাঁসির আদেশ দেন। পরবর্তীতে গিট্টু নাসির ক্রসফায়ারে মারা যান। আসামি মহিউদ্দিন ওরফে মাইন উদ্দীন, হাবিব খান, শাজাহান ও সাইফুল ওরফে ছোট সাইফুলসহ চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত।

উচ্চ আদালতে শাজাহান খালাস পেলেও বাকিদের সাজা বহাল ছিল। সবশেষ মামলাটি আপিল বিভাগে শুনানি শেষে মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামির সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন।

Sharing is caring!