বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ও স্বেচ্ছাচারী মৃত্যুদণ্ড বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিবেদক অ্যাগনেস ক্যালামার্ড মন্তব্য করে বলেছেন- সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান দেশটির সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের প্রধান সন্দেহভাজন।

তিনি তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলুকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন।

জাতিসংঘের এ শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা বলেন, জামাল খাশোগি নিহত হওয়ার পর নির্দেশদাতা ও হত্যার উস্কানি দেয়ার জন্য সৌদি যুবরাজকে প্রধান সন্দেহভাজন বলে মনে করা হচ্ছে।

অ্যাগনেস ক্যালামার্ড বলেন, জামাল খাশোগি হত্যার আলামত এ কথাই বলে দিচ্ছে যে, সৌদি আরবের কার্যত শাসক যুবরাজ বিন সালমানের অবদান ছাড়া এ ধরনের হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হতে পারে না।

তিনি বলেন, এক বছরের বেশি সময় আগে যে তথ্য দেয়া হয়েছিল সে অনুসারে আমি বিশ্বাস করি যে, মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র কাছেও এ তথ্য আছে।

সৌদি অভিযুক্ত দুই ডজন ব্যক্তির অনুপস্থিতিতে তুরস্ক যে বিচার পরিচালনা করছে সে সম্পর্কে জাতিসংঘের এ কর্মকর্তা বলেন, এটি পরিষ্কার যে, রিয়াদ সরকার এসব ব্যক্তিকে আদালতে উপস্থিত হতে দেবে না। সে কারণে তুরস্কের এ বিচার প্রক্রিয়ার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে।

২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কন্স্যুলেট অফিসে জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়।

Sharing is caring!