করোনা বৃষ্টিতে সবাই ভিজবে: ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো বলেছেন, ‘চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনা অনেকটা বৃষ্টির মতো। এতে বিশ্বের প্রায় সবাই ভিজবে।’

করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় মোটেও অবাক হননি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যেসব উপসর্গ আমি বহন করছি, তার সবই মৃদু এবং এখন পর্যন্ত আমি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক আছি।’

এর আগে ইউরোপ, আমেরিকাসহ অন্যান্য দেশ যখন করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছিল ব্রাজিলের এই প্রেসিডেন্ট তখন পর্যন্ত ভাইরাসটিকে পাত্তাই দেননি। এমনকি, লকডাউনের পক্ষে মত দেয়ায় বরখাস্ত করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে। এরপরই তাণ্ডব চালাতে শুরু করে সেখানে করোনা। যাতে প্রতিদিনই হাজার মানুষ আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি প্রাণ হারাচ্ছে শত শত ব্রাজিলিয়ান।

এমন অবস্থায় চার দফা পরীক্ষার পর মঙ্গলবার (৭ জুলাই) তার করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে নিজেই জানান বলাসোনারো। খবর বিবিসির।

এর আগে তার উপসর্গ দেখা দিলে, তিনি বাবরার সংক্রমণের ঝুঁকি কমিয়ে দেখার চেষ্টা করে বলেন, ‘তার সামান্য ফ্লু হয়েছে এবং তিনি গুরুতর আক্রান্ত হবেন না।’

এছাড়া, ব্রাজিলের সেই প্রেসিডেন্ট করোনা ভাইরাসকে ভাওতাবাজি বলেও উল্লেখ করেছিলেন। কিন্তু এবার নিজেই আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তিনি বলেছেন, ‘তার জ্বর কমে গেছে, এখন ভালো বোধ করছেন।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত বলসোনারো শুধু নিজের নয়, তার দেশে করোনার তথ্য প্রকাশে নানাভাবে সংকুচিত করার চেষ্টা করেন। গতমাসের মাঝামাঝিতে আক্রান্তদের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন। পরে কঠোর সমালোচনার মুখে নতুন ওয়েব সাইটে পূর্ণাঙ্গ তথ্য তুলে ধরার নির্দেশ সংশ্লিষ্টদের।

এরপর থেকে প্রতিদিন গড়ে ৩০ হাজার মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন। প্রাণ ঝরছে শত শত মানুষের। এমন অবস্থায়ও তথ্য গোপনের অভিযোগ তুলেছেন দেশটির চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

এখন পর্যন্ত দেশটিতে ১৬ লাখ ৭৪ হাজার ৬৫৫ জন মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৮ হাজার ৫৮৪ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নতুন করে প্রাণ গেছে ১ হাজার ৩১২ জনের। এ নিয়ে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৬৬ হাজার ৮৬৮ জনে ঠেকেছে। আক্রান্ত ও প্রাণহানির তালিকায় অনেক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন।

Sharing is caring!