আনলিমিটেড নিউজ, কক্সবাজারঃ কক্সবাজারের টেকনাফে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মো. সাকের (২২) নামের এক রোহিঙ্গা ইয়াবাকারবারি নিহত হয়েছে।

আজ রোববার ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার নয়াপাড়া নাফ নদীস্থ বেঁড়িবাধ এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। নিহত রোহিঙ্গা উখিয়ার বালুখালী ৯নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লক-এইচ/৬ এর বাসিন্দা খাইরুল আমিনের ছেলে।

বিজিবি জানায়, ‘রোববার ভোররাতে নয়াপাড়া বিওপির বিশেষ টহল দল মাদকের চালান আসার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নয়াপাড়া লবণের মাঠে কৌশলী অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর উক্ত পয়েন্ট দিয়ে কয়েকজন লোক বস্তা নিয়ে মিয়ানমারের ওপার থেকে নাফ নদী পার হয়ে বেঁড়িবাধে পৌঁছলে তাদের থামানোর জন্য চ্যালেঞ্জ করে। কিন্তু, মাদককারবারি চক্রের সদস্যরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়। পরে বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এতে মাদককারবারিরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সাকেরকে ওই উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

সেখানে আহত বিজিবি জওয়ানদের চিকিৎসা দিয়ে গুলিবিদ্ধ মাদককারবারিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

টেকনাফ ২নং বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান ঘটনার সত্যতা সতত্যা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট আইনে টেকনাফ থানায় মামলা রুজুর প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা ও একটি দেশিয় তৈরি বন্দুক ও ২ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।’

Sharing is caring!