আনলিমিটেড নিউজ ডেস্কঃ ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনা বাড়ছে। সীমান্তের খুব কাছে চীনা সেনাবাহিনী অর্থাৎ পিপলস লিবারেশন আর্মির একটা হেলিকপ্টারকে উড়তে দেখা গিয়েছে। মাটির খুব নীচ দিয়ে এই হেলিকপ্টারের উপস্থিতি ভারতের উদ্বেগ বাড়িয়েছে। যদিও চীনা ভূপৃষ্টে সেই কপ্টারের উপস্থিতি ছিল। কিন্তু ঝুঁকি এড়াতে ভারতীয় বায়ু সেনার একটা কপ্টারকে এ সময় উড়ানো হয়।

এনডিটিভি সেনা সূত্রে জানায়, চীনা কপ্টারের ওপর নজরদারি করতে এই উদ্যোগ। দুই দেশের বায়ুসেনার ওই বিমান সীমা লঙ্ঘন করেনি। দু’টি কপ্টারই নিজেদের ভূপৃষ্টের ওপর ছিল।

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, লাদাখের এলএসি বরাবর এই অঞ্চলে গত সপ্তাহে দুই দেশের পদাতিক বাহিনীর সক্রিয়তা ঘিরে উত্তেজনা বেড়েছিল। সীমান্তের দু’পাশ থেকেই উড়ে এসেছিল পাথর। একইভাবে সিকিমের নাথু লা এলাকায় মুখোমুখী চলে এসেছিল দুই দেশের পদাতিক বাহিনী।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা যায়, দুই দেশের সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে এই ধরনের ঘটনা ঘটেই থাকে। পরে ফ্ল্যাগ বৈঠক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এক্ষেত্রেও সেটা হয়েছে। যদিও বেশ কয়েক মাস পর এভাবে ভারত-চীন সীমান্তে ফের উত্তেজনা বাড়ল, জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বলে, এলএসিতে পিএলএ শান্তি-স্থিতি বজায়ে কাজ করে। দুই দেশের উচিত দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত সমস্যা সমাধান করা। আমরা সবসময় ভারতীয় সেনার সঙ্গে সমন্বয় রেখেই সীমান্ত ব্যবস্থা মজবুত রাখি।

Sharing is caring!