আনলিমিটেড নিউজঃ করোনার এই দুর্ভোগে সুপ্রিমকোর্টের প্রায় আড়াই হাজার আইনজীবীকে বিনা সুদে ঋণ দিচ্ছে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি (সুপ্রিমকোর্ট বার)।

আজ মঙ্গলবার সুপ্রিমকোর্ট বার সম্পাদক ব্যারিষ্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশে গত ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি চলছে। এরই প্রেক্ষিতে দেশের আদালতেও ছুটি ঘোষণা করা হয়।

‘সর্বোচ্চ আদালতে অবকাশ ও করোনা মহামারি জনিতসাধারণ ছুটির কারণে দীর্ঘদিন আদালতে বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ থাকায় ক্রান্তিকালীন পরিস্থিতিতে আইনজীবীদের জন্য বিনা সুদে ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিমকোর্ট বার কার্যনির্বাহী কমিটি।’ বলেন তিনি।

কাজল আরও বলেন, ঋণ গ্রহণের জন্য আইনজীবীদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করা হয়। সে অনুযায়ী বিজ্ঞ আইনজীবীরা সুপ্রিমকোর্ট বারের ওয়েব সাইট অনুসরণ করে সমিতির মেইলে এবং সরাসরি আবেদন জমা দেন। তিন বছরের মধ্যে পাঁচ কিস্তিতে আইনজীবীরা বিনা সুদে এ ঋণ পরিশোধের সূযোগ পাচ্ছেন।

সুপ্রিমকোর্ট বারের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০০০ সাল বা তার আগে সমিতিতে তালিকাভুক্ত সদস্যদের এককালীন ৭৫ হাজার টাকা, ২০০১ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ৫০ হাজার টাকা, ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ৪০ হাজার টাকা এবং ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তালিকাভুক্ত সদস্যদের এককালীন ৩০ হাজার টাকা সুদমুক্ত ঋণ দেয়া হচ্ছে। ঋণ গ্রহণকারী সদস্যরা পাঁচ কিস্তিতে (২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত) ঋণ শোধ করবেন।

Sharing is caring!