আনলিমিটেড নিউজঃ ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জয়ী মেয়র ও কাউন্সিলরগন শপথ নিয়েছেন আজ। এদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটির আলোচিত ১নং ওয়ার্ডের নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর ও আনলিমিটেড নিউজ২৪.কম এর সম্মানিত উপদেষ্টা মাহবুবুল আলম মাহবুব শপথ নিয়েই প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শনা বাস্তবায়নে সকলের দোয়া চেয়েছেন।

মাহবুব বলেন, মশা যেন মানুষের ঘুম হারাম না করে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শনা বাস্তবায়ন করবো, মাদক ও যানজট নিরসনে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করবো।

এদিকে বৃহস্পতিবার ঢাকার দুই মেয়র ও কাউন্সিলরদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ঢাকায় যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা মশা নিয়ন্ত্রণে এখন থেকে ব্যবস্থা নিন। মশা যেন আপনার ভোট না খেয়ে ফেলে সেদিকে নজর রাখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে দুর্নীতি হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় এমন বার্তা দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, একটি নির্দিষ্ট সময় পর আমাদের ক্ষমতা ছাড়তে হয়। আর এসময়ে কারো অনিয়ম কিংবা দুর্নীতির কারণে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যস্থা নেয়া হবে। চলমান মাদক ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যবহত থাকবে বলেও জানান তিনি ।’

আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নব নির্বাচিত ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পরিকল্পনামত যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। করোনা ঠেকাতে আলাদা হাসপাতাল হবে জানিয়ে পাশাপাশি সবাইকে সরকারের দেয়া এ সংক্রান্ত নির্দেশনা মেনে চলতে হবে বলে জানান।’

উন্নয়নের জন্য বাজেটকৃত অর্থ যথাযথভাবে ব্যয় হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জনপ্রতিনিধিদের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে হবে। অনেক প্রজেক্ট করে দেয়া হচ্ছে। সেগুলোর কাজ যাতে যথাযথভাবে হয় সেদিকে ভালোভাবে খেয়াল রেখে কাজকে এগিয়ে নিতে হবে। জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। মেগা প্রকল্প থেকে শুরু করে প্রতেক্যকটি উন্নয়ন প্রকল্প যাতে সঠিক সময়ে বাস্তবায়ন হয় সে জন্য সহযোগীতা করারও নিদের্শনা দেন শেখ হাসিনা।’

দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার সক্ষমতা অর্জন করেছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘সকল প্রাকৃতিক দুর্যোগে যেন মানুষের ক্ষয়ক্ষতি কম হয়, সেলক্ষে ডেল্টা প্লান ২১০০ প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে কাজ শুরু করেছে সরকার। অতীতের ন্যায় যাতে সরকার পরিবর্তন হলেও উন্নয়নের ধারা থেমে না যায়, সে জন্য এই পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে।’

দেশের ৯৫ ভাগ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মানুষ অর্থনৈতিকভাবে যেভাবে স্বচ্ছল হচ্ছে, তেমনিভাবে চাহিদাও বাড়ছে।

Sharing is caring!