ঢাকা (০৮ নভেম্বর, ২০১৯): সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, সাংবাদিকরা জাতির চোখ হিসাবে বিবেচিত। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম প্রচার, ত্রুটি-বিচ্যুতি জাতির সামনে তুলে ধরে সরকারকে সঠিক পথে পরিচালিত করা, জাতির বিভিন্ন অাশা-অাকাঙ্ক্ষা, চাহিদা, প্রত্যাশা, সমস্যা-সংকট সরকারের নিকট তুলে ধরাসহ বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে জনগণকে সচেতন করে তোলার ক্ষেত্রে মুখ্য ভূমিকা পালন করে সাংবাদিক সমাজ। তাঁরা সরকার ও জনগণের মধ্যে সেতুবন্ধ হিসাবে কাজ করে।

 

 

 

প্রতিমন্ত্রী আজ সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিঅারইউ) আয়োজিত “ডিআরইউ শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯” এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

 

 

 

প্রধান অতিথি বলেন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অন্যতম প্রধান দায়িত্ব হচ্ছে দেশীয় সংস্কৃতির লালন, ধারণ ও বিকাশে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ও কার্যক্রম গ্রহণ। ১৮০০ এর অধিক রিপোর্টারদের নিয়ে গড়া বাংলাদেশের রিপোর্টারদের বৃহত্তম সংগঠন ‘ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’ ডিঅারইউ শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসব অায়োজনের মাধ্যমে তাঁদের সন্তানদের মেধা, মনন ও সৃজনশীলতা বিকাশে যে পদক্ষেপ নিয়েছে, তাকে সাধুবাদ জানাই। অাশা করছি ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত থাকবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আজকের ক্ষুদে শিশুরাই অামাদের অাগামীদিনের ভবিষ্যৎ। তিনি এ ধরনের অনুষ্ঠানে জনপ্রিয় শিল্পীদের উপস্থিতি নিশ্চিতকরণের জন্য ডিঅারইউ’র কার্যনির্বাহী কমিটিকে অনুরোধ করেন যাতে শিশু-কিশোররা তাঁদের দেখে উৎসাহিত হয়ে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চায় অারো অধিক হারে মনোনিবেশ করতে পারে।

 

 

 

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) এর সভাপতি ইলিয়াস হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী, গবেষক ও প্রশিক্ষক ফেরদৌস আরা ও ন্যাশনাল ক্রেডিট এণ্ড কমার্স (এনসিসি) ব্যাংক লিমিটেড এর জনসংযোগ বিভাগের প্রধান অানোয়ার হোসেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন ডিআরইউ’র সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান।