আনলিমিটেড নিউজঃ আদালতের শৌচাগারে অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়লেন পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শক। চাঁদপুর জেলা জজ আদালতে কর্মরত আরিফ হোসেন নামে এই পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

 

 

 

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হাইমচর উপজেলার মহজমপুর গ্রাম থেকে আসা বিচারপ্রার্থী এক নারীসহ এটিএসআই আরিফকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে জনতা।

 

 

 

অভিযোগ রয়েছে ঘটনার সময় ছবি তুলতে গেলে কোর্টে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মী অ্যাডভোকেট চৌধুরী ইয়াসিন ইকরামকে লাঞ্ছিত করে ডিবি পুলিশ।

 

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান বলেন, তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

 

 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই নারীর সঙ্গে তার স্বামী শরীফ গাজীর মামলা চলমান। তার স্বামী ওই নারীর বিরুদ্ধে দু’টি মামলা করেছে। তিনিও তার স্বামীর বিরুদ্ধে ১টি মামলা করেছেন। বুধবার একটি মামলায় তিনি আদালতে হাজিরা দিতে আসেন।

 

 

 

অপরদিকে এটিএসআই আরিফ জজকোর্টের পুলিশ বিভাগে কর্মরত। তিনি জেলখানা থেকে প্রতিদিন আসামিদের আনা-নেওয়া করেন। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের জন্য পুলিশের একটি অভ্যন্তরীণ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

 

 

এদিকে গণমাধ্যম কর্মীদের ওই ঘটনার ছবি বা ফুটেজ সংগ্রহে ডিবি পুলিশ বাধা দিলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, জনতা কর্তৃক বাথরুমে আটকের পর এটিএসআই আরিফ বাথরুমের দেয়াল টপকে বাইরে বের হয়ে ওই নারীকে বাইরে থেকে ছিটকিনি খুলে বের করে নেওয়ার চেষ্টা করে।