আনলিমিটেড নিউজঃঃ  যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের স্ত্রী শারমিন জানিয়েছেন, গত ২ বছর ধরে মহাখালীর বাসায় যেত না সম্রাট। এমনকি ক্যাসিনোর টাকা পয়সা পরিবারকেও দিতো না।

শারমিন বলেন, ক্যাসিনো চালিয়ে সেই অর্থ দলের পেছনেই খরচ করতেন। এগুলো বাসায় আসতো না।

রোববার (৬ অক্টোবর) মহাখালীর নিজ বাসায় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

সম্রাটের জুয়ার নেশা রয়েছে জানিয়ে তার স্ত্রী বলেন, ও সিঙ্গাপুরে জুয়া খেলতে যেত। জুয়া খেলা তার নেশা, কিন্তু সম্পত্তি করা তার নেশা না।

ক্যাসিনো ব্যবসার সঙ্গে জড়িত জি কে শামীম, খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, সেলিম প্রধানকে চেনন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে সম্রাটের স্ত্রী জানান, তিনি খালেদ মাহমুদ ভূইয়া ছাড়া কাউকে চেনেন না।

তিনি বলেন, খালেদকে চিনি। মাঝেমধ্যে অফিসে যেতাম তখন খালেদকে দেখতাম। ওতটুকুই কিন্তু, আর কিছু না।

 

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় রোববার ভোর ৫টায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১ এর একটি বিশেষ দল। একই সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী এনামুল হক আরমানকেও।