আনলিমিটেড নিউজঃ সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে মোবাইল ফোনে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে।

 

 

 

এ ঘটনায় মেয়র আরিফুল সিলেট কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

 

 

 

গতকাল শনিবার মেয়রের পক্ষে জিডিটি করেন সিসিকের জনসংযোগ কর্মকর্তা শাহাবউদ্দিন।

 

 

সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মিঞা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক নম্বর দিয়ে মেয়রের পক্ষে জিডি করা হয়েছে। পুলিশ এই নম্বর দুটি ব্যবহারকারী সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে তদন্ত করছে।

 

 

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, মেয়র আরিফুলের মোবাইল ফোনে শনিবার সকাল ১০টার দিকে গ্রামীণফোন ও বাংলালিংকের দুটি নম্বর থেকে পরপর বেশবার কল আসে। প্রথম কলটি রিসিভ করেন মেয়রের সঙ্গে থাকা একজন ব্যক্তিগত সহকারী। এসময় ওপাশ থেকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করলে ফোন কেটে দেয়া হয়। এর পর আরও কয়েকবার ফোন করে একইভাবে গালিগালাজ করে।

 

 

 

এক পর্যায়ে চতুর্থ দফাও ফোন আসলে মেয়র আরিফুলে নিজেই ফোন রিসিভ করেন। তখন ফোনের ওপাশ থেকে ‘তোর চেয়ার কেড়ে নেব’ বলে মেয়রকে হুমকি দেয়া হয়। ফোন কেটে দিলে আরও কয়েকবার ফোন আসে। কিন্তু ধরা হয়নি। এর পর প্রায় ১০-১৫ মিনিট পর একটি বাংলালিংক নম্বর থেকে ফোন করে ‘তোকে শেষ করে দেব’ বলে মেয়রকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়।

 

 

 

এই দুটি নম্বর থেকে প্রায় আটবার ফোন করা হয়। এবং চেয়ার কেড়ে নেয়া ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। এ বিষয়টি মেয়রের স্বাভাবিক কাজকর্ম ও চলাফেরায় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কায় জিডি করা হয়েছে।

 

 

জানা যায়, গতকাল শনিবার সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়ামের পাশে একটি নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের জায়গা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন মেয়র। ঠিক এসময়ই মোবাইলে মেয়রকে উপর্যুপরি হুমকি দেয় কলদাতা।

 

 

এ ব্যাপারে মেয়র আরিফুল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘হুমকিদাতা যে ভাষায় কথা বলেছে, তাতে তাকে কোনও সিলেটি বলে মনে হয়নি। ঘুরেফিরে “চেয়ার কেড়ে নেওয়া”, “শেষ করে দেওয়া”- এ রকম কথা বলে আমার কাজে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে কোনও কুচক্রী মহল জড়িতে বলে ধারণা করছি। তবে এসব হুমকি-ধমকিতে আমি বিচলিত নই।’

 

 

মেয়র বলেন, ‘ওপাশ থেকে যখন আমাকে অশ্রাব্য ভাষায় যা তা গালিগালাজ করা হচ্ছিল ও হত্যার হুমকি দিচ্ছিল তখন আমিও কলদাতাকে পাল্টা গালি দিয়েছি। তাকে বলেছি, আমাকে শেষ করবে? বল কোথায় আসব? পরে আর ফোন আসেনি।’

 

 

 

২০১৩ সালে প্রথমবার সিসিক মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী। দ্বিতীয় দফায় আবারও মেয়র নির্বাচিত হন ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই।