আনলিমিটেড নিউজঃ মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ঢাকা ডেন্টাল কলেজকে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। তিনি বলেন, এই কলেজের ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের জন্য গবেষণার সুযোগসহ অন্যান্য সুবিধা সম্প্রসারণ করা হবে।

 

 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর মিরপুরে অবস্থিত ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতালে মহান মুক্তিযুদ্ধে এই কলেজের শহীদ শিক্ষক ও ছাত্রদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা একথা বলেন। কলেজের অধ্যক্ষ ডা. হুমায়ুন কবির বুলবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কলেজের অষ্টম ব্যাচের শিক্ষার্থী শহীদ আহসানুল কাদেরের বড় ভাই সাবেক সচিব ও রাষ্ট্রদূত মোঃ আফসারুল কাদের, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক মহাসচিব শফিকুল বাহার মজুমদার টিপু।

 

 

কলেজের অধ্যক্ষ ডা. হুমায়ুন কবির বুলবুল বলেন, বিভিন্ন সূত্র ও গবেষণার মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধে এ কলেজে ও হাসপাতালের দুইজন শিক্ষক ও একজন ছাত্রের শাহাদত বরণ করার তথ্য পাওয়া যায়। তাঁদের স্মরণে আজ স্মৃতিফলক উন্মোচন করা হল।
শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনগণের একমাত্র দাবি উন্নয়ন। তাই সকল প্রতিষ্ঠানকে জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে। কোনো গ্রুপিং বা দলাদলি করে কোন প্রতিষ্ঠান থেকে ক্ষতিগ্রস্থ করে যাবেনা। কলেজের ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আগামীতে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব তাদের গ্রহণ করতে হবে। ছাত্রছাত্রীদের মাঝে নেতৃত্বের গুণাবলী বিকশিত করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে এলক্ষ্যে সকল প্রকার সহযোগিতা প্রদানের জন্য শিল্প প্রতিমন্ত্রী কলেজ কর্তৃপক্ষের নিকট আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য ও দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোলমডেল উল্লেখ করে শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের নজিরবিহীন অগ্রগতিতে সারাবিশ্ব বাংলাদেশকে সমীহ ও সম্মান করে। স্বাস্থ্যসেবা, কৃষি, শিক্ষ সহ সকল ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দুরন্ত গতিতে এগিয়ে চলছে।

 

তিনি বলেন, জনগণের জন্য বিশ্বমানের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা ও এই খাতে গবেষণার সুযোগ সম্প্রসারিত করতে চারটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশে আজ খাদ্যশস্য, মাছ, সবজি, বিদ্যুৎ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে।

 

সাবেক সচিব ও রাষ্ট্রদূত মোঃ আফসারুল কাদের মুক্তিযুদ্ধের সকল স্মৃতি সংরক্ষনের উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানান। তাঁর ছোটভাই শহীদ আহসানুল কাদের ১৯৭১ সালের আগস্ট মাসে কুষ্টিয়ায় ২১ বছর বয়সে শাহাদতবরণ করেন বলে তিনি জানান।