আনলিমিটেড নিউজ ডেস্কঃ মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে তার পদ থেকে বহিষ্কার করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জন বোল্টনকে মধ্যপ্রাচ্যে ইরান ও উত্তর কোরিয়াকে সামলানোর দায়িত্ব দেয়া হয়েছিলো।

 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এএফপির খবরে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে দেয়া পোস্টে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, “গতরাতে আমি জন বোল্টনকে জানিয়েছি যে, হোয়াইট হাউজে তার সেবার আর প্রয়োজন নেই। আমি তার অনেক পরামর্শের সঙ্গে জোরালোভাবে দ্বিমত পোষণ করেছি এবং আমার প্রশাসনের ব্যাপারেও তার সঙ্গে আমি অনেক ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করেছি। আমি তাকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছি এবং তিনি আজ সকালে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।”

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটার পোস্ট আরো লিখেছেন, “তার সেবার জন্য আমি জন বোল্টনকে অনেক ধন্যবাদ জানাই। আগামী সপ্তাহে আমি নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার নাম ঘোষণা করবো।”

 

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং অর্থমন্ত্রী স্টিভেন নুচিনের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হওয়ার দেড় ঘণ্টা আগে জনকে বরখাস্ত করা হলো। এ সম্পর্কে তিনি অবশ্য ভিন্ন কথা বলেছেন। জন বোল্টন বলেছেন, “আমি গতরাতে পদত্যাগের প্রস্তাব দিয়েছি এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন আমরা এ বিষয়ে আগামী কাল কথা বলব।

 

এর আগে ট্রাম্প বিভিন্ন সময়ে জন বোল্টনকে যুদ্ধবাজ ব্যক্তি হিসেবে কৌতুক করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একবার হোয়াইট হাউসে বলেছিলেন, ‘এমন কোনো যুদ্ধ নেই যা জন বোল্টন পছন্দ করেন না।’

Sharing is caring!