আনলিমিটেড নিউজ, বিশেষ :: আগামী একাদশ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছে নানাবিধ আলোচনা। কে পাচ্ছেন নৌকার টিকিট! জানা যায়, আগামী নির্বাচনে দলের যোগ্য, ত্যাগী ও জনগণ বান্ধব ব্যক্তিকেই চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন দিবে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এ ক্ষেত্রে একাদশ সংসদ নির্বাচনে তরুণ নেতৃত্ব চলে আসতে পারে বেশিরভাগ আসনেই।

 

সূত্রমতে, ভাল ইমেজের সাহসী, ত্যাগী নেতাদের দিকে দৃষ্টি থাকবে দলটির হাইকমান্ডের। ইতোমধ্যে দলটির হাইকমান্ডের নিদের্শনায় দায়িত্ব প্রাপ্তনেতারা আসন ভিত্তিক জরিপ পরিচালনা করছে।

 

এদিকে, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট তুমুল আলোচনায় আছে ঢাকা- ৮ আসনের সংসদ সদস্য হওয়ার। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিশ্বস্ত ভ্যানগার্ড হিসেবে ইতোমধ্যে নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করেছেন ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রকাশ্যেই বলেছেন, ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট আজ সৌন্দর্যের আইকন, শৃঙ্খলার আইকন, তথা যুবলীগের আইকনে পরিনত হয়েছে। যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী যুবলীগের আইকন হিসেবে ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট নাম ঘোষণা করেছেন।

 

জানা যায়, দক্ষিণ যুবলীগের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট যোগ্য নেতৃত্ব সৃষ্টিতে অবিরাম কাজ করে গেছেন। রাজপথ কারো সঙ্গে প্রতারণা করে না সম্রার্ট তারই উদাহরণ। তিনি রাজপথ থেকে আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে গড়ে ওঠা নেতা। তার সাহসীক নেতৃত্বে আজ দক্ষিণ যুবলীগের অন্তর্গত প্রতিটি থানা ও ওয়ার্ড সফলভাবে সম্মেলন করে যাচ্ছে। বেরিয়ে আসছে যোগ্যতা সম্পূর্ণ নেতৃত্ব।

 

তাই আগামী নির্বাচনে ঢাকা-৮ আসনের নৌকার মাঝি হিসেবে অনেকেই তাকে আশা করেন। সূত্রমতে, আওয়ামী লীগের গুড বুকেও ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্টের নামটি রয়েছে।

 

ইতোমধ্যেই তার অনুসারীরা তাকে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে এগিয়ে রাখছেন। তারা আশা করছেন তরুণ নেতৃত্বকে যদি দল গুরুত্ব দেয় তবে ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট সবার চেয়ে এগিয়ে থাকবে।

 

এবিষয়ে আনলিমিটেড নিউজ’কে ইসমাইল চৌধুরী সম্রার্ট বলেন, আগামী নির্বাচনটি আমাদের জন্য অতন্ত্য গুরুত্বপূর্ণ। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আগামী নির্বাচনটি আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। তবে নির্বাচনে সকল দল অংশ গ্রহণ করবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ একটি নির্বাচন কাম্য। তবে কেউ যদি ষড়যন্ত্র করার লক্ষ্যে, ইচ্ছা করে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ না করে তার দায়ভার আওয়ামী লীগের নয়। আগামী নির্বাচনে দল যাকেই মনোনয়ন দিবে ভেবে চিন্তে দেবেন বলে আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, দল যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার পক্ষেই কাজ করবো।

 

সম্রার্ট বলেন, দেশনেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমাদের যা করণীয় আমরা তাই করার চেষ্টা করবো। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আগামীর সুন্দর বাংলাদেশ বির্নিমাণে আমরা বদ্ধ-পরিকর। তরুণ নেতৃত্বের প্রতি অবশ্যই হাইকমান্ডের শুভ দৃষ্টি থাকবেন বলেও তিনি বিশ্বাস করেন।